সর্বশেষ সংবাদ

১৫টি ট্রলারসহ ৪০ মাঝি অপহরণ

কলাপাড়া প্রতিনিধি:  কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে মাছধরা ট্রলারে গণডাকাতির খবর পাওয়া গেছে। এসময় ১৫ টি ট্রলারসহ ৪০ জন মাঝি-মাল্লাকে অপহরণ করা হয়েছে। ডাকাতের গুলিতে জেলে মো.হানিফ (৫৫) ও মালেক গুরুতর জখম হয়েছে। হানিফ এফবি নীলদরিয়া ট্রলারের জেলে। হানিফকে শঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিমে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল থেকে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত গভীর সমুদ্রে গণডাকাতি করেছে বলে ফিরে আসা জেলেরা জানিয়েছেন। এ ঘটনায় মৎসবন্দর মহিপুর-আলীপুরের জেলেদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।

মহিপুর আড়ত মালিক সমিতির সভাপতি দিদার উদ্দিন আহম্মেদ জানান, অন্তত ৫০টি ট্রলারে ডাকাতি হয়েছে। অপহরন করা হয়েছে কমপক্ষে ১৫ টি ট্রলার। যার মধ্যে এফবি মায়ের দোয়া, এফবি ইসলাম, এফবি সুগন্ধা, এফবি রাকিবুল, এফবি নাসির ট্রলারের নাম বলেছেন। এছাড়া এসব ট্রলারের মাঝি আবু তাহের মাঝি (৪০), শফি মাঝি (৫৫), মোতালেব (৩২), রাকিব (৩০), নুরুল ইসলাম মাঝি (৪২), কালাম (৩২), জাহাঙ্গীর (৪৫) নাজিমউদ্দিন (৪২) মনির (৩৮), রফিক (৩৬), মোতাহার (৪৫), নিকুঞ্জ (৩৭),সুলতান মিয়া (৪৬), অব্দুল মন্নান মাঝি (৫৫) সহ অনেক জেলের অপহরনের কথা জানিয়েছেন।

আলীপুর-কুয়াকাটা মৎস ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি আনছার মোল্লা জানান, নীলদরিয়া ট্রলারের হানিফকে গুলি করা হয়েছে। একই ট্রলারের মাঝি রত্তন (৪৫) ও অপর একটি ট্রলারের মাঝি সফিকে অপহরন করা হয়।  এদিকে সাগরে নিরাপত্তার জন্য কোস্টগার্ড-র‌্যাব-পুলিশের যৌথ অভিযান চালানোর দাবি জানিয়েছেন জেলেরা। মহিপুর পুলিশি তদন্ত কেন্দ্রের এসআই আবুল কাশেম জানান, তিনিও সাগরে ডাকাতির ঘটনা শুনেছেন।

Leave a Reply