সর্বশেষ সংবাদ
ভোলায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চলছে খাবার পরিবেশন ।। স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে জনসাধারণ

ভোলায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চলছে খাবার পরিবেশন ।। স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে জনসাধারণ

ভোলার অধিকাংশ হোটেলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চলছে খাবার পরিবেশন। দীর্ঘদিন ধরে হোটেলগুলোতে নিম্নমানের পচা বাসি খাবার পরিবেশনের সাথে সাথে এবার স্বনামধন্য এক হোটেলে ভাতের মধ্যে পাওয়া গেছে আস্ত কাচের টুকরো। ভোলা সদর রোডের হোটেল আলাউদ্দিনে   আজ সকালে এক ক্রেতা ভাত খাওয়ার সময় ধারালো কাচের টুকরো তার মুখে গিয়ে কেটে যায়।

এরকম ভোলা শহরের অধিকাংশ হোটেলেই অনিরাপদ খাদ্য পরিবেশনের অভিযোগ রয়েছে। হোটেল আলাউদ্দিন, হোটেল রয়েল, নিরালা হোটেল, হোটেল আহসান, হোটেলতৃষ্ণা সহ বেশ কয়েকটি হোটেলে বিশুদ্ধ পানির বদলে খাওয়ানো হয় সাপ্লাই লাইনের পানি। যা জনস্বাস্থের জন্য হুমকি স্বরুপ।

একই ভাবে এসব হোটেল রোস্তরা মালিকরা মোটা অংকের রাজস্ব ফাকি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। প্রশাসনের তদারকি না থাকার ফলে এসব হোটেলগুলো রমরমা ব্যবসা করে আসছে।

সরেজমিন ঘুরে সংশ্লিস্টদের সঙ্গে আলাপ করে এসব তথ্য জানা গেছে। ভোলা সদর রোডের আলম, জাফর, শামিম, কামাল জসিমসহ বেশ কয়েকজন ক্রেতা জানান, ভোলার বেশির ভাগ হোটেলেই সকালের খাবার রাতে তৈরি করে ঢেকে রেখে দেয়। সকালে হোটেল চালু করার পূর্বে গরম করে এগুলো পরিবেশন করে।

অবিক্রিত মাংস এবং ঝোলের মধ্যে নতুন করে আবার রান্না করা হয়।
রশিকতা করে এক ক্রেতা বলেন অধিকাংশ হোটেলের বয়স আর তার ডালের বয়স একই। ক্রেতারা অভিযোগ করেন, পচা খাবার গরম করে আমাদের খেতে দেয়। খাবারের ভিতরে বিভিন্ন ধরনের পোকামাকড় পাওয়া যায়।

পাথর আর কাচের টুকরোতো সামান্য ব্যাপার। আজ সকালে হোটেল আলাউদ্দিনে ভাত খেতে গিয়ে ভাতের মধ্যে থাকা কাঁচের টুকরোতে মাড়ি কেটে যায় শামিম নামের এক ক্রেতার।

এ ব্যাপারে হোটেল আলাউদ্দিনের মালিক আলাউদ্দিন বলেন আড়ৎ থেকে চাউল এনে রান্না করি এতে কাচের টুকরো, পাথর থাকতে পারে, সেটা তো কেউ দেখে দেয়নি।

ক্রেতারা জানান প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিয়মিত তদারকি না থাকার সুযোগে যত্রতত্র গড়ে ওঠছে অনুমোদনহীন হোটেল রেস্তোরা এবং এসব হোটেলে বিক্রি করা হচ্ছে নিম্নমানের খাবার যা খেয়ে অসুস্থ হয়ে পরছেন সাধারন মানুষ। নিয়মিত মোবাইল কোটের অভিযানের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানিয়েছে সাধারন ক্রেতারা।

Leave a Reply