সর্বশেষ সংবাদ
ভাণ্ডারিয়া যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত দল

ভাণ্ডারিয়া যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত দল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃপিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া সরকারি কলেজে গত ৯ এপ্রিল এইচএসসি পরীক্ষা চলাকালীন সংঘটিত ‘অনভিপ্রেত’ ঘটনার তদন্তে ভাণ্ডারিয়া যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি দল। মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, যুগ্ম সচিব (কলেজ) মোল্লা জালাল উদ্দিন ও মিরপুর বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ ইমাম হোসেন শুক্রবার বিকেলে ভাণ্ডারিয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেছেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সুবোধ চন্দ্র ঢালী শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। তদন্ত কমিটি শনিবার থেকেই কাজ শুরু করবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, গত ৯ এপ্রিল এইচএসসির ইংরেজি প্রথমপত্র পরীক্ষা চলাকালীন ভাণ্ডারিয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের ২৪তম বিসিএসের কর্মকর্তা সহকারী অধ্যাপক মোনতাজ উদ্দিন। একপর্যায়ে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে পরীক্ষা কক্ষে প্রবেশ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) ২৯তম বিসিএসের কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম। এ সময় শিক্ষক মোনতাজ উদ্দিন তার পরিচয় জানতে চাইলে ক্ষেপে যান আশরাফুল। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে আশরাফুল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনির হোসেন হাওলাদারকে ফোন ও পুলিশ ডেকে পাঠান। তারা অধ্যক্ষের কক্ষে প্রকাশ্যে শিক্ষক মোনতাজ উদ্দিনকে ওই ম্যাজিস্ট্রেটের পা ধরে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করেন।

শিক্ষকের মাফ চাওয়ার এই ছবি প্রথমে স্থানীয় কয়েকটি গণমাধ্যম ও পরে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে সারাদেশে কর্মরত শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তারা শিক্ষামন্ত্রী ও সচিবের কাছে স্মারকলিপিও দেন।

এ ঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। এ ছাড়া আরেকটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বরিশাল শিক্ষাবোর্ড।

Leave a Reply