সর্বশেষ সংবাদ
এসএসসিতে বরিশালে পাসের হার ৮৪.৩৭॥জিপিএ ৫- পেয়েছে ৩ হাজার ১৭১

এসএসসিতে বরিশালে পাসের হার ৮৪.৩৭॥জিপিএ ৫- পেয়েছে ৩ হাজার ১৭১

মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় এবার ৮৪ দশমিক ৩৭ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে, যাদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ১৭১ জন। শনিবার (৩০ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মু শাহ আলমগীর এ তথ্যজানান।

তিনি বলেন, এ বছর বরিশাল বোর্ডে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে পাস করেছে ৭০ হাজার ৪৫৬ জন। পাশের হার ৮৪.৩৭%। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩১৭১ জন। গত বছরের তুলনায় পাশের হার কমেছে ৬.২৯%। এছাড়া জিপিএ-৫ কমেছে ১ হাজার ৫৯১ টি।

পরীক্ষা নিয়ন্তক জানান, পরীক্ষার মাঝে হরতাল-অবরোধ ও জ্বালাও-পোড়াও -এর কারণে শিক্ষার্থীরা পড়াশুনায় পুরোপুরি মনোনিবেশ করতে পারেননি। পরীক্ষার ফলাফলে এর প্রভাব পড়েছে।

তিনি আরো জানান, এ বছর সর্বপ্রথম গণিত পরীক্ষা সৃজনশীল পদ্ধতীতে অনুষ্টিত হয়েছে। নতুন পদ্ধতির কারণে গণিতে পাশের হার কিছুটা কমেছে। গত বছর গণিতে পাশের হার ছিলো ৯৭.৪২%। এ বছর গণিতে পাশের হার কমেছে ৯.০৬%।

গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিএনপি জোটের অবরোধ-হরতালের কারণে তা ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়।

হরতালের কারণে পিছিয়ে যায় এসএসসির সবগুলো পরীক্ষা। শুক্র-শনিবারে নেওয়া হয় এসব পরীক্ষা। গত ১০ মার্চ এসএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও গত ৩ এপ্রিল এই পরীক্ষা শেষ হয়।

গত কয়েক বছরের মতো এবারও যে কোনো মোবাইল অপারেটর থেকে এসএমএস করে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানা যাবে।

এসএসসি লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৫ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে দিলে ফিরতি এসএমএসে ফল পাওয়া যাবে।

এছাড়া শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট
(http://www.educationboardresults.gov.bd/lite/index.php) থেকেও পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ওয়েবসাইটে গিয়ে ফলাফল ডাউনলোড করতে পারবে। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো হার্ডকপি সরবারহ করা হবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তর থেকে ফলাফলের হার্ডকপি সংগ্রহ করা যাবে বলে
আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি জানিয়েছে।

Leave a Reply