সর্বশেষ সংবাদ
ভারতের জেল থেকে মুক্ত বরিশালের নারী

ভারতের জেল থেকে মুক্ত বরিশালের নারী

ভারতে কারা ভোগের পর মুক্ত হয়ে দেশে ফিরেছেন গীতা রানী (৪০) নামে বরিশালের এক নারী। দীর্ঘদিন তিনি দিল্লীর কারাগারে বন্দি ছিলেন। শুক্রবার বিকেলে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

সেই সাথে তুলে দেয়া হয় চট্রগ্রামের অনজু রায় (৫০) এবং সাতক্ষীরার অঞ্জলী মন্ডল (২২) নামে দুই নারীকে। তাদের মধ্যে গীতা রানীর বাড়ি বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায়।

সূত্রমতে, ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে দালাল চক্র গীতা রানীকে বছর দুয়েক আগে ভারতের দিল্লীতে নিয়ে যায়। তখন অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে পুলিশ তাদের আটক করে জেলে পাঠায়। এরপর কারাভোগ শেষে দিল্লীতে ‘নারী নিকেতন’ নামে একটি শেল্টার হোম তাদের ছাড়িয়ে নিজেদের আশ্রয়ে রাখে।

পরে দু’দেশের সরকারের দেওয়া ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তারা শুক্রবার স্বদেশ ফেরত আসে। বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এসআই) খায়রুল হোসেন সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফেরত আসা গীতা রানী সাংবাদিকদের জানান,‘তিনি রাজধানীর মোহম্মদপুরের একটি গার্মেন্টসে চাকুরী করতেন। সেখান থেকে অনুপ চক্রবর্তী নামে এক ব্যক্তি তাকে কাজের প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধভাবে ভারত নিয়ে যায়। সেই সাথে আরও দুই নারীকেও নিয়ে যাওয়া হয়। তখন অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে পুলিশ তাদের আটক করে জেল হাজতে পাঠায়।’

ওই নারী আরও জানান, ভারতীয় দীল্লির দিল্লীতে কারাগার ও ‘নারী নিকেতন’ শেল্টার হোম বরিশালের অন্তত ২শ নারী রয়েছেন। যাদের অধিকাংশের বাড়ি বরিশালের আগৈলঝাড়া, বানারীপাড়া ও উজিরপুর উপজেলায়।

Leave a Reply