সর্বশেষ সংবাদ
ভোলার পুলিশ সুপারের বদলি বাতিল

ভোলার পুলিশ সুপারের বদলি বাতিল

ভোলা প্রতিনিধি ॥ ভোলার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান এর বদলির আদেশ বাতিল হওয়ায় ভোলার মাদক পল্লীসহ ক্রাইমজোন গুলোতে হতাশা দেখা দিয়েছে। ১৯মে সন্ধ্যায় পুলিশ সুপারের বদলির আদেশ ভোলাময় ছড়িয়ে পড়লে জেলার ক্রাইমজোন গুলোতে আনন্দের জোয়ার দেখা দিলেও ২দিনের ব্যাবধানে হতাশা নেমে এসেছে ওই অঞ্চল গুলোতে। বিশেষ করে দীর্ঘদিন থেকে ভোলার মনপুরার চর ডেম্পেয়ার, কলাতলিরচর, চরনিজাম, ডালচরসহ বিচ্ছিন্ন বণাঞ্চল গুলোতে আস্থানা গেড়ে নদীসহ মালবাহী জাহাজে ডাকাতি করে আসা জলদস্যু স্পিকার বাহিনীর প্রধান জয়নাল স্পীকারসহ ৫জলদস্যু নিহত হয় পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামানের স্বড়াশি অভিযানে। এর পর থেকে অকার্যকর জলদস্যুদের চৌকিগুলোতে বাতি জলতে না দেখা গেলেও বদলির খবরের সাথে সাথে ফের সচল হতে দেখা গেছে ওই সকল ক্রাইম জোন। এ দিকে আজ বদলির আদেশ বাতিলের খবর ছড়িযে পরায় একে একে হতাসা নেমে আসে জলদস্যুদের আস্তানা, মাদকস্পটসহ ভোলার বিভিন্ন অপরাধ জগতে। ক্রাইমজোনে হতাশা দেখা দিলেও বদলির আদেশ বাতিলের খবরে সন্তোশ প্রকাশ করেছেন ভোলার সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। ভোলা প্রেসক্লাব সভাপতি এম হাবিবুর রহমান জানান, পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান ভোলায় যোগদানের পর থেকে মাদক ব্যাবসা সমূলে দমন করায় ভোলার অভিবাকরা আজ চিন্তামুক্ত রয়েছে। ভোলার বাস মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সফিকুল ইসলাম জানান, বর্তমান পুলিশ সুপার এমন একটি ক্রিটিক্যাল মুহুর্তে ভোলায় যোগদান করেছেন যখন সাড়া দেশজুড়ে নৈরাজ্য অস্থিরতা বিরাজ করছিল সেই মুহুর্তে তার দূরদর্শি প্রসাশনিক সিদ্ধান্ত ও কার্যকরি ভুমিকায় ভোলার মানুষ খুজে পেয়েছে এক শান্তির জনপদ। শুধু তাই নয় ভোলার মেঘনাসহ বিস্তীর্ন সাগর মহনার জলদস্যুতা নিয়ন্ত্রন করে নৌপথের নিরাপত্তা বাড়ানোসহ জেলেদের জন্য নিরাপদ মৎস আহরন জোন তৈরি করেছেন। চেনা ভোলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে ভবিষ্যতে আরো কার্যকরি ভুমিকার আশা প্রকাশ করেন তরুন শিক্ষানুরাগী এই নেতা। এদিকে ভোলার পুলিশ সুপারের বদলি বাতিলের সিদ্ধান্তে প্রসাশনের উচ্চ পর্যায়ের কর্তাব্যাক্তিদেরে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ভোলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ। বদলি বাতিল সম্পার্কে পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান জানান, আজ বাতিল হয়েছে কাল আবার চলেযেতে হবে। আমাদের চাকরিটাই বদলির।এর মাঝে যে দায়িত্বগুলো আমাদের উপর অর্পিত হয় আমি তা সম্পূর্নরুপে পালনের চেষ্টা করেছি। যা বদলির খবর আসার সাথে সাথে ভোলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনসহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ প্রসংশায় মাধ্যমে জীবনের শ্রেষ্ট পাওয়া পেয়েছি। বদলির আদেশ বাতিলে ভোলায় ফের কাজ করার সুযোগ হয়েছে। আসা করছি মাদকের মুলৎপাটনসহ জলদস্যুতা সমূলে নিয়ন্ত্রন করে ভোলাকে একটি সন্ত্রাসমুক্ত আদর্শ জেলা করতে পারবো।

Leave a Reply