সর্বশেষ সংবাদ
নলছিটি সরকারি খাদ্য গুদাম মজুদ শূন্য : দুর্ভোগে বরাদ্দপ্রাপ্তরা

নলছিটি সরকারি খাদ্য গুদাম মজুদ শূন্য : দুর্ভোগে বরাদ্দপ্রাপ্তরা

৮ দিন ধরে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার এক মাত্র সরকারি খাদ্য গুদাম মজুদ শূন্য থাকায় ঝালকাঠি খাদ্য গুদাম থেকে সরবরাহ করা হচ্ছে। ফলে বিভিন্ন প্রকল্পের বরাদ্দপ্রাপ্তরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন।

নিয়মানুযায়ী আপদকালীন সমস্যা মোকাবিলার জন্য ন্যূনতম ৩০০ টন খাদ্য সামগ্রী মজুদ রাখার কথা এ খাদ্য গুদামটিতে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে তা রাখা হয়নি। ফলে প্রকল্পের বরাদ্দপ্রাপ্তরা বাধ্য হয়ে ঝালকাঠি গুদাম থেকে খাদ্য সামগ্রী সংগ্রহ করছেন। এতে তাদের টন প্রতি তিনগুণ বেশি খরচ বহন করতে হচ্ছে। ফলে অতিরিক্ত খরচ বহন করতে হিমশিম খাচ্ছেন জনপ্রতিনিধি ও বরাদ্দপ্রাপ্তরা।

জানা গেছে, নলছিটি উপজেলা সদরে অবস্থিত খাদ্য গুদামে গত ৮ দিন ধরে চাল ও গমের কোনো মজুদ নেই। উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার বিভিন্ন এলাকার উন্নয়ন ও সাহায্যে ভিজিএফ, ভিজিডি, কাবিখা, টিআরসহ নানা প্রকল্পের বিপরীতে বরাদ্ধকৃত চাল, গম সরবরাহ করা হয় এ খাদ্য গুদাম থেকে। কিন্তু বর্তমানে এ খাদ্য গুদামটিতে কোনো খাদ্য সামগ্রী মজুদ না থাকায় বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য বরাদ্ধপ্রাপ্তরা চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। গুদামটিতে কোনো খাদ্য সামগ্রী মজুদ না থাকায় কাজের অভাবে গুদাম শ্রমিকরা মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

এ ব্যাপারে নলছিটি খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা (ওসি এলএসডি) মো. আলাউদ্দিন মিয়া জানান, গত ৩১ মের মধ্যে রাজশাহীর বাঘা থেকে জাহাজে করে এ গুদামে মাল পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু যে জাহাজে করে মাল বহন করা হচ্ছিল সেটি হঠাৎ বিকল হয়ে পড়ায় যথাসময়ে গুদামে মাল  পৌঁছতে পারেনি।

উপজেলা থেকে বিভিন্ন প্রকল্পের বিপরীতে বরাদ্দকৃত খাদ্য সামগ্রী গত মাসের ৩১ তারিখের মধ্যে ছাড় করার বাধ্যবাধকতা থাকায় (কাট অফ ডেট) নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই ওই মালামাল সরবরাহ করা হয়। এতে এ খাদ্য গুদামটি মজুদ শূন্য হয়ে পড়েছে। ফলে গত ৩১ মে থেকে বিভিন্ন প্রকল্পের বিপরীতে বরাদ্দকৃত (ডিও) খাদ্য সামগ্রী ঝালকাঠি খাদ্য গুদাম থেকে সরবরাহ করা হচ্ছে। তবে শিগগিরই এ গুদামে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে যাবে বলে আশা প্রকাশ করছেন মো. আলাউদ্দিন মিয়া।

Leave a Reply