সর্বশেষ সংবাদ
বরিশাল আকাশে ডানা মেললো ইউএস-বাংলা

বরিশাল আকাশে ডানা মেললো ইউএস-বাংলা

বরিশালবাসীর নিরাশ না করে সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বরিশালের আকাশে পাখা মেললো ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। উদ্বোধনী ফ্লাইটের ৭৬ জন যাত্রী নিয়ে শুক্রবার বিকেল ৪ টায় বরিশাল বিমানবন্দরে অবতরন করে ইউএস-বাংলার বিমানটি। এসময় বরিশাল বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক মো. হানিফ গাজী ও বিমানবন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ উপস্থিত জনতা উদ্বোধনী ফ্লাইটের যাত্রীদের শুভেচ্ছা জানান। এসময় ইউএস বাংলার পক্ষ থেকে তাদের বিমানের প্রত্যেক যাত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

পরে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে বরিশাল থেকে ৩৪ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় বিমানটি। এখন থেকে প্রতি সপ্তাহের ৪ দিনই অর্থাৎ মঙ্গল, বৃহস্পতি, শুক্র ও রোববার বিকেলে নিয়মিত একই সময়ে ঢাকা-বরিশাল-ঢাকা রুটে চলাচল করবে ড্যাস-৮ কিউ-৪০০ মডেলের টার্বোপ্রপ ইঞ্জিনের ৭৬ আসনের এ বিমান বলে জানান ইউএস-বাংলার বরিশাল অফিসের ইনচার্জ মো. রিয়াদ হোসেন।

এদিকে বর্তমানে এ রুটে রোববার সকালে ও বুধবার বিকেলে চলছে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট। ফলে এখন থেকে সপ্তাহের ৫ দিনই বরিশালের আকাশে পাখা মেলবে বহুপ্রতীক্ষিত সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার বিমান। এরমধ্যে আবার রোববার চলবে উভয় সংস্থার দু’টি বিমানই। বরিশাল বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক মো. হানিফ গাজী জানান, ঢাকা-বরিশাল-ঢাকা রুটে আরো একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্স সপ্তাহের ৭ দিনই তাদের ফ্লাইট চালানোর চিন্তাভাবনা করছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৮ এপ্রিল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ওই ঢাকা-বরিশাল-ঢাকা রুটের ফ্লাইট সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি। তখনই প্রতিদিন ফ্লাইট চালুর জন্য সর্বমহল থেকে বিমান মন্ত্রীর কাছে দাবি তোলা হয়। এসময় মন্ত্রী মেনন দ্রুততম সময়ের মধ্যে এ রুটে সপ্তাহে কমপক্ষে ৪/৫ দিন বিমান চলাচলের আশ্বাস দেন।

এরপর রিজেন্ট এয়ারওয়েজ নামে একটি বেসরকারি বিমান সংস্থা এ রুটে চলাচলের ঘোষণা দিয়েও শেষ পর্যন্ত তা বাস্তবায়ন করেনি। তাই ১০ জুলাই নতুন ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের উদ্বোধনের খবরে যাত্রী ও বরিশাল বিমানবন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে প্রাণচাঞ্চল্য বিরাজ করার পাশাপাশি খানিক শঙ্কা বর্তমান ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিমানটি যথাসময়ে রানওয়ের মাটি স্পর্শ করলে উপস্থিত সবার মাঝে খুশির জোয়ার ছড়িয়ে পড়ে।

Leave a Reply