» চড় মেরে ৬ মাসের জেল(ভিডিও)

Published: ১২. অক্টো. ২০১৮ | শুক্রবার

অনলাইন ডেস্ক// ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি ক্যাফেটেরিয়ার পাশের রাস্তায় এক তরুণীকে চড় মেরে বসে এক তরুণ। চড় মারার সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এরই জেরে দেশটিতে যৌন হয়রানির আইনের দাবিতে অনেক নারী রাস্তায় নামলে তরুণকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সম্প্রতি নারী নির্যাতনের ওই মামলায় তরুণকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

এছাড়াও ওই ব্যক্তিকে এ ঘটনার জন্য জরিমানা গুনতে হবে দুই হাজার ইউরো। আদালতের দেয়া ওই ছয় মাসের দণ্ড তাকে কাটাতে হবে মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রসহ সংশোধনমূলক কর্মকাণ্ডে। বৃহস্পতিবার ওই যুবকের বিরুদ্ধে এ রায় দেন ফ্রান্সের আদালত।

গত ২৪ জুলাইয়ের ওই ঘটনার শিকার নারীর নাম মারি ল্যাগা। ওইদিন সন্ধ্যায় একটি ক্যাফেটেরিয়ার পাশে তাকে চড় মারেন ওই যুবক। পরদিনই ওই নারী তার ফেসবুকে পেজে ঘটনাটির একটি ভিডিও আপলোড করলে এ নিয়ে তুমুল হৈচৈ শুরু হয়ে যায়।

ভিডিও ফুটেজটিতে দেখা যায়, এক পথচারী ওই নারীর দিকে চেঁচিয়ে অ্যাশট্রে ছুঁড়ে মারছে। এরপর তরুণীর পিছু পিছু হাঁটতে থাকে সে। এক পর্যায়ে ক্যাফের পাশে দাঁড়ানো অবস্থায় তরুণীকে কে চড় মেরে উল্টো দিকে চলে যায় সে। সেই সময় ক্যাফেতে বসে থাকা তিন ব্যক্তি ও এক নারী ওই যুবকের পথ আটকালেও চলে যায় সে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ভিডিওটি দেখেন ২৪ লাখের বেশি মানুষ। ভিডিওটি আট হাজার শেয়ার হয় এবং তাতে আড়াই হাজারের বেশি মানুষ মন্তব্য করেন। এরপর বিষয়টি নিয়ে তুমুল সমালোচনা তৈরি হলে চলতি বছরের আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এছাড়াও ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর যৌন হয়রানি রোধে আইনের দাবিতে আন্দোলন শুরু কের অনেক নারী এবং মানবাধিকারকর্মী।

এরপরই নারীদের উত্ত্যক্ত ও যৌন হয়রানির জন্য ৭৫০ ইউরো পর্যন্ত জরিমানা করে খুব দ্রুততার সঙ্গে একটি আইন পাস করা হয় দেশটিতে।