সর্বশেষ সংবাদ

» বরগুনায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করে পালিয়ে বেড়াচ্ছে স্ত্রী!

Published: ০২. নভে. ২০১৮ | শুক্রবার

অনলাইন ডেস্ক// বরগুনার আমতলীতে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করে পালিয়ে বেড়াচ্ছে পারভীন বেগম। প্রতিনিয়ত তাকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে- উপজেলার ভায়লাবুনিয়া গ্রামের মো. গোলাম মোস্তফা আকনের মেয়ে পারভীন বেগমের সঙ্গে একই গ্রামের মতিউর রহমান হাং-এর ছেলে জহিরুল ইসলাম মনিরের বিয়ে হয়। বিয়ের পর হতেই মনির যৌতুকের জন্য তার স্ত্রী পারভীন বেগমকে নির্যাতন করে আসছিল। যৌতুকের জন্য জহিরুল ইসলাম মনির পারভীন বেগমকে বেদম মারধর করলে পারভীন বেগমকে তার স্বজনেরা আমতলী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় পারভীন বেগম বাদী হয়ে মোকাম বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল, বরগুনায় তার স্বামী জহিরুল ইসলাম মনির ও শ্বশুর মতিউর রহমান হাং-এর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে। বিজ্ঞ আদালত উক্ত মামলার তদন্তভার আমতলী থানার ওপর ন্যস্ত করলে তদন্তকারী কর্মকর্তা তার তদন্ত শেষে বাদীর অভিযোগ সত্য মর্মে বিজ্ঞ আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

মামলার আসামি মো. জহিরুল ইসলাম মনির মামলা তুলে নেওয়ার জন্য পারভীন বেগম ও তার পিতার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন রকম হুমকি দিয়ে আসছে।

এ ব্যাপারে মামলার বাদী পারভীন বেগমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন- আমার স্বামী মো. জহিরুল ইসলাম মনির মাদকাসক্ত। সে নিয়মিত ইয়াবা খায় এবং কোনো কাজ কর্ম করে না। বিভিন্ন সময় তাকে বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দিয়েছি। কিন্তু নেশার টাকার জন্য সে প্রতিনিয়ত আমাকে মারধর করে। তার নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আমি মামলা করতে বাধ্য হয়েছি। এখন সে আমাকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিয়ে আসছে এবং মামলা তুলে না নিলে খুন করে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। সে মাদকাসক্ত। তার পক্ষে সবই সম্ভব। তার ভয়ে আমি এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছি।

এ ব্যাপারে জানার জন্য মো. জহিরুল ইসলাম মনিরের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল বন্ধ থাকায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নাই।

এ বিষয়ে আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন মিলন বলেন, এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’