» স্পিডবোর্ট ডুবিতে নিখোঁজ পটুয়াখালির ফাতেমাসহ ৩ জনের লাশ উদ্ধার

Published: ১২. নভে. ২০১৮ | সোমবার

অনলাইন ডেস্ক// মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার মেয়ে ফাতেমা আক্তারসহ তিন যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
নিহতরা হলেন- গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর থানার প্রশন্নপুর গ্রামের আ. রহমান উকিলের ছেলে মেরাজুল ইসলাম রাজু (২২), মেরাজুলের স্ত্রী সাদিয়া আক্তার লিমা আক্তার (১৮) ও পটুয়াখালির বাউফল উপজেলার আমিরাবাদ গ্রামের রুবেল গাজির মেয়ে ফাতেমা আক্তার (৮)।

শিবচর থানা পুলিশ জানিয়েছে- গতকাল রোববার বিকেলে শামীম মাদবরের মালিকানাধীন স্পিডবোটটি ২৪ জন যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসে। মাঝ নদীতে এসে চলন্ত স্পিডবোটটি একটি ডাম্প ফেরির সঙ্গে ধাক্কা লেগে ডুবে যায়। তাৎক্ষণিক নদীতে টহলরত সেনা কর্মকর্তারা ২১ জন যাত্রীকে উদ্ধার করেন। এ সময় ৩ যাত্রীকে খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি। সোমবার সকালে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে শিবচর থানা পুলিশ।

শিবচর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন মোল্লা সাংবাদিকদের জানান, গতকাল রোববার বিকেলে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।’